• আজঃ বৃহস্পতিবার, ৭ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২২শে অক্টোবর, ২০২০ ইং
  • English

‘সেই বিলাসবহুল গাড়িটি আসলে আজহারীর নয়’

মিজানুর রহমান আজহারী। ছবি : সংগৃহীত

হঠাৎ করে দেশ ছেড়ে মালয়েশিয়া চলে যান ইসলামি বক্তা মিজানুর রহমান আজহারী। তবে সেখানে যাওয়ার পর আজহারীর কিছু ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে, যেখানে দেখা যায়, ‘বেন্টলি’ ব্র্যান্ডের একটি গাড়ি চালাচ্ছেন আজাহারী।

জানা গেছে, বিশ্বের বিলাসী গাড়িগুলোর একটি হলো বেন্টলি। এই ব্র্যান্ডের মুলসানি ভি-৮ সিরিজের একেকটি গাড়ির মূল্য মালয়েশিয়াতে ট্যাক্স এবং অন্যান্য খরচ ছাড়াই ৩ মিলিয়ন রিঙ্গিত। ইউএস ডলারে যা ৭ লক্ষ ২৫ হাজার ৬৯০ এবং বাংলাদেশি টাকায় ৬ কোটি ২০ লক্ষ টাকার মত।

সমালোচনাকারীরা বলছেন, দেশে কোটি কোটি টাকা কামিয়ে বিলাসবহুল জীবনযাপন করতেই মালয়েশিয়ায় চলে গেছেন আজহারী।

তবে যুগান্তর’এর এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এ বিলাসবহুল গাড়ি আজহারীর নয় এবং তিনি মালয়েশিয়ায় গিয়ে এ গাড়ি চালাননি। ছবিগুলো তার সম্প্রতি তোলা নয় বলেও বলা হয় প্রতিবেদনে।

খবরে বলা হয়, এ গাড়িটি আজহারী চালিয়েছেন সিঙ্গাপুরে। আর গাড়ির মালিকের নাম – সাহিদুজ্জামান টরিক।

সাহিদুজ্জামান টরিকের এক ঘনিষ্ঠ সূত্র জানায়, সাহিদুজ্জামান টরিক সিঙ্গাপুর-বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্সের সাবেক সভাপতি। তার দেশের বাড়ি চুয়াডাঙ্গা জেলায়। ছয়-সাত মাস আগে টরিকের নিমন্ত্রণে এক মাহফিলে যোগ দিতে সিঙ্গাপুরে যান মিজানুর রহমান আজহারী। সে সময় সেখানে টরিকের এই গাড়িতে চড়ে সিঙ্গাপুর ঘুড়েন। তিনি নিজেও অল্প কিছু সময় গাড়ি চালান। সে সময় তোলা হয় ছবিগুলো।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই ব্যক্তি বলেন, ‘গাড়ির নেমপ্লেট দেখলেই বোঝা যায় এটা মালয়েশিয়ার কোনো গাড়ি নয়। এখানে SJZ888IR লেখা। আর এমন নেমপ্লেট সিঙ্গাপুরের গাড়িগুলোর হয়ে থাকে।’

উল্লেখ্য, মিজানুর রহমান আজহারীর সঙ্গে সাহিদুজ্জামান টরিকের বন্ধুত্ব রয়েছে। গত বছরের ১৬ ডিসেম্বর চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার পাঁচকমলাপুর দারুল উলুম হাফেজিয়া কওমি মাদ্রাসায় তাফসিরুল কোরআন মাহফিলে আজহারী যোগ দিয়েছিলেন। ওই মাদ্রাসার পরিচালকই সাহিদুজ্জামান টরিক।

ফেসবুকে লাইক দিন

Latest Tweets

তারিখ অনুযায়ী খবর

October 2020
FSSMTWT
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031