• আজঃ মঙ্গলবার, ১৩ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৬শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং
  • English
ব্রেকিং নিউজঃ

কাশ্মীরের নির্বাচনে বিজেপিকে হারিয়ে বড় সাফল্য গুপকর জোটের

কাশ্মীরের স্থানীয় নির্বাচনে জয়ের পর শ্রীনগরের একটি ভোট কেন্দ্রের বাইরে ন্যাশনাল কনফারেন্স প্রার্থী সালমান সাগরের উদযাপন।

ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির বিরুদ্ধে কাশ্মীরের স্থানীয় নির্বাচনে বড় সাফল্য পেয়েছে বিরোধী গুপকর জোট।

গত বছর মোদি সরকার কর্তৃক কাশ্মীরের বিশেষ অধিকার বাতিলের পর এটিই ছিল রাজ্যটিতে অনুষ্ঠিত প্রথম নির্বাচন।

সেখানে গুপকর জোটের এই সাফল্য মোদি সরকারের সেই বিতর্কিত সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ হিসাবেই দেখা হচ্ছে।

নির্বাচনে বড়সড় সাফল্য পেয়েছে ফারুক আবদুল্লার নেতৃত্বাধীন গুপকর জোট। তারা কাশ্মীর বিরোধ সমাধানের জন্য ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে আলোচনার পক্ষপাতী।

উপত্যকার ২০টি জেলার প্রথম নির্বাচনে ১৩টিই দখল করেছে তারা। তবে জম্মুতে ভাল ফল করেছে বিজেপি। সেখানে ৬টি জেলায় জয়ী হয়েছে মোদি-শাহের দল।

গুপকর জোটের সাফল্যের মাঝেও উপত্যকায় একক বৃহত্তম দল হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে বিজেপি।

মঙ্গলবার থেকেই জম্মু ও কাশ্মীরের জেলা উন্নয়ন পরিষদ (ডিডিসি)-এর ভোটগণনা শুরু হয়েছিল। প্রথম থেকেই তাতে এগিয়ে ছিল গুপকর জোট।

বুধবার বেলা গড়াতে দেখা যায়, ১০০-রও বেশি আসন দখলে নিয়েছেন জোটের প্রার্থীরা। তবে একক বৃহত্তম দল হিসেবে বিজেপি পেয়েছে ৭৪টি আসন।

অন্য দিকে, জোটের সমর্থনকারী কংগ্রেস ২৬টি আসন দখল করেছে। বুধবার এই ফলাফল বের হতেই নিজেদের সাফল্যে সুর চড়িয়েছে জোট এবং বিজেপি নেতৃত্ব— দু’পক্ষই। তবে এই ‘সাফল্য’-কে গেরুয়া শিবির বাড়িয়েচাড়িয়ে দেখছে বলে মত ন্যাশনাল কনফারেন্সের ওমর আবদুল্লার।

কাশ্মীরের ফলাফল দেখে ভাল ফল করা জোটের নেতা ওমরের টুইট, ‘উপত্যকায় ৩টি আসনে জয়কে বড় সাফল্য হিসেবে তুলে ধরার প্রলোভন রয়েছে বিজেপি-র কাছে, তা তো বুঝতে পারছি।

তবে গুপকর জোট যে জম্মুতে ৩৫টিতে জয়ী/এগিয়ে রয়েছে, তা কেন খাটো করা হচ্ছে?’ গত ২৮ নভেম্বর থেকে ১৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত ২৫ দিন ধরে আট দফায় ভোট হয়েছে ডিডিসি-র।

২০টি জেলার ২৮০টি আসনে প্রার্থী দিয়েছে গুপকর জোট। বুধবার বিকেল পর্যন্ত তার ২টি আসন বাদে সবক’টির ফলাফলা ঘোষিত।

এর মধ্যে প্রত্যাশা মতোই কাশ্মীরে ভাল প্রদর্শন জোটের। অন্য দিকে, জম্মুতে বেশির ভাগ আসন জিতেছে বিজেপি। কাশ্মীরে ৭২টি আসনে জয়লাভ করেছেন জোট-প্রার্থীরা। বিজেপি-র হাতে এসেছে ৩টি আসন।

শ্রীনগর জেলার রাশ নির্দল প্রার্থীর দখলে এসেছে। জোট এবং বিজেপি প্রার্থীদের জয়ের মাঝে চমকপ্রদ সাফল্য নির্দল প্রার্থীদের।

কংগ্রেস বা মেহবুবা মুফতির দল পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টি (পিডিপি)-র থেকেও বেশি সংখ্যক মোট ৪৯টি আসন দখল করেছেন তারা।

জম্মুকে ৭১টি আসনে জয়ের মুখ দেখেছে বিজেপি। জম্মু ছাড়াও উধমপুর, সাম্বা, কাঠুয়া, রিয়াসি এবং ডোডা জেলার জয়ী হয়েছেন গেরুয়া শিবিরের প্রার্থীরা।

অন্য দিকে, ন্যাশনাল কনফারেন্স এবং কংগ্রেস জিতেছে ৪৫টি আসন। গত বছরের অগস্টে নরেন্দ্র মোদী সরকার সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ রদ করে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বিলোপের পর থেকেই তার বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন ফারুক আবদুল্লা-মেহবুবা মুফতিরা।

চলতি বছরের অক্টোবরে ফারুক আবদুল্লার নেতৃত্বে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্য়াদা ফেরানোর দাবিতে গুপকর জোট গঠন করেন ফারুক আবদুল্লা এবং মেহবুবা মুফতিরা।

তাতে ন্যাশনাল কনফারেন্স এবং পিডিপি-সহ উপত্যকার দশটি দল জোট বাঁধে। ‘পিপলস অ্যালায়েন্স ফর গুপকর

ডিক্লারেশন’ (পিএজিডি) নামের এই জোটকে সমর্থন করে কংগ্রেস। বুধবার ডিডিসি-র নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশ্যে আসতে জোটের হয়ে ওমর আবদুল্লা সংবাদমাধ্যমে বলেছেন, “২০১৯ নিয়ে তাদের মতামত কী, তা জম্মু ও কাশ্মীরের মানুষ নিজেদের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিয়েছেন।

তারা এটি সমর্থন করেন না। বিজেপি-র প্রচারকে তারা বিপুল ভাবে প্রত্যাখ্যান করেছেন।

সূত্র: ডন

ফেসবুকে লাইক দিন

Latest Tweets

তারিখ অনুযায়ী খবর

January 2021
FSSMTWT
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031