• আজঃ রবিবার, ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৯শে নভেম্বর, ২০২০ ইং
  • English
ব্রেকিং নিউজঃ

প্রতিবাদী সাংবাদিকদের মুখ বন্ধ করতে সরকার বেপরোয়া : ফখরুল

দৈনিক সংগ্রামের প্রধান প্রতিবেদক ও বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) একাংশের সভাপতি রুহুল আমিন গাজীর রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলা প্রত্যাহার ও নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

এ সময় সরকারের সমালোচনা করে বিএনপির নেতা বলেন, ‘অন্তহীন ক্ষমতালিপ্সার জন্য এরা প্রতিবাদী সাংবাদিকদের মুখ বন্ধ করতে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। তাই প্রতিবাদী সাংবাদিক, নির্ভীক লেখক ও অকুতোভয় গণতন্ত্রকামী বরেণ্য সাংবাদিকদের মিথ্যা মামলায় গ্রেপ্তারের খেলায় মাতোয়ারা হয়ে গেছে। সাংবাদিকদের গ্রেপ্তার দুঃশাসনকে টিকিয়ে রাখারই ইঙ্গিতবহ।’

রাজধানীর হাতিরঝিল থানায় দায়ের করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ও রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় গতকাল বুধবার রাতে মগবাজারের একটি কার্যালয় থেকে রুহুল আমিন গাজীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার ঢাকার একটি আদালত তাঁর জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এই পরিপ্রেক্ষিতে আজ এ ব্যাপারে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বিবৃতি এলো।

রুহুল আমিন গাজীকে গ্রেপ্তারের মধ্য দিয়ে সরকার মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে স্তব্ধ করতে আরো একটি ঘৃণ্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করল- এমন মন্তব্য করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আগামী দিনে আওয়ামী ফ্যাসিবাদের চেহারা কী বীভৎস রূপ ধারণ করবে সেটিরই একটি কু-নজির এটা। কথায় কথায় বিরুদ্ধ মতাবলম্বীদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা দিয়ে সরকার দেশে প্রতিহিংসার রাজনীতিকে চরম পর্যায়ে নিয়ে গেছে।’

মির্জা ফখরুল আরো বলেন, ‘রুহুল আমিন গাজীকে রাষ্ট্রদ্রোহের বানোয়াট মামলায় গ্রেপ্তারের মাধ্যমে সরকারের সমালোচক, প্রতিবাদী কলামিস্ট, বিবেকবান লেখক-বুদ্ধিজীবীদের বর্তমান ফ্যাসিস্ট সরকার এক অশুভ বার্তা জানান দিল। সরকার কেবল বিএনপিসহ বিরোধীদলীয় নেতাকর্মীদেরই নয়, তারা এখন টার্গেট করেছে ফ্যাসিবাদবিরোধী প্রতিবাদী কণ্ঠস্বরকে। সরকারের পায়ের তলা থেকে মাটি সরে গেছে। জনসমর্থনহীন এই সরকার হিতাহিত-বিবেচনাহীন।’

 

ফেসবুকে লাইক দিন

Latest Tweets

তারিখ অনুযায়ী খবর