• আজঃ মঙ্গলবার, ১২ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৭শে অক্টোবর, ২০২০ ইং
  • English

প্রথম ৯ দিনে ৫৪ হাজার মুসল্লির পবিত্র ওমরাহ পালন

মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে সাত মাস বন্ধ থাকার পর গত ৪ অক্টোবর থেকে পবিত্র ওমরাহ চালুর অনুমতি দেয় সৌদি আরব সরকার। ওমরাহ চালুর প্রথম নয় দিনে ৫৪ হাজার মুসল্লি পবিত্র ওমরাহ সম্পন্ন করেছেন।
তবে এখনো মসজিদুল হারামাইন শরিফ পুরোপুরি স্বাভাবিক হয়নি। ১৮ অক্টোবর থেকে এখানে নামাজের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে। ওই দিন থেকে দৈনিক ১৫ হাজার মানুষ ওমরাহ পালনের সুযোগ পাবেন।
করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে গত মার্চ থেকে পবিত্র ওমরাহর কার্যক্রম বন্ধ করে দেয় সৌদি আরব। মহামারির কারণে এবার মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় সমাবেশ হজও সীমিত আকারে পালিত হয়েছে। করোনার প্রকোপ কমে আসায় ৪ অক্টোবর সকাল থেকে ওমরাহ পালনকারীদের জন্য মসজিদুল হারাম খুলে দেওয়া হয়। ওই দিন থেকে দৈনিক ছয় হাজার মুসল্লি ওমরাহ পালন করছেন।
গত ২২ সেপ্টেম্বর পুনরায় ওমরাহ শুরুর ঘোষণার সময় সৌদি আরবের হজবিষয়ক মন্ত্রী মোহাম্মদ বেনতেন জানিয়েছিলেন, প্রথম পর্যায়ে খুবই সতর্কতার সঙ্গে এবং সুনির্দিষ্ট সময়ের ভেতরে ওমরাহ পালন করা হবে। ওমরাহ পালনকারীদের কয়েকটি গ্রুপে বিভক্ত করা হবে এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার বিষয়টি নিশ্চিত করা হবে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ওমরাহ পালনকারীদের পবিত্র কাবা তাওয়াফ করতে হবে। আপাতত কাবা শরিফ স্পর্শ ও হাজরে আসওয়াদে চুমো খাওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে।
করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে ওমরাহ-যাত্রীদের কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হচ্ছে। মসজিদুল হারামের প্রবেশপথ এবং ভেতরের বিভিন্ন স্থানে বসানো হয়েছে থারমাল ক্যামেরা, যাতে নিয়মিত তাপমাত্রা পর্যবেক্ষণ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা যায়। এসব নিয়ম মেনেই ওমরাহ পালনকারীরা ওমরাহ সম্পন্ন করছেন।
এমনিতে বছরের যেকোনো সময় মুসলমানরা ওমরাহ করতে মক্কা ও মদিনায় যেতে পারেন। ২০১৯ সালে সব মিলিয়ে এক কোটি ৯০ লাখ মানুষ ওমরাহ পালন করেছেন। প্রতিবছর বিভিন্ন দেশের ২০ লাখের বেশি মানুষ হজ করার সুযোগ পেলেও এবার সৌদি আরবে বসবাসরত মাত্র কয়েক হাজার মুসলমান সে সুযোগ পেয়েছেন।
পবিত্র ওমরাহর কার্যক্রমকে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে নিতে সৌদি সরকার বেশ কিছু পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। পরিকল্পনার অংশ হিসেবে প্রথম ধাপে শুধু সৌদি আরবে অবস্থানরত মুসল্লিরা ওমরাহ পালনের সুযোগ পেয়েছেন ৪ অক্টোবর থেকে। একদিনে ছয় হাজার জন আলাদা আলাদা ছয়টি সময়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ওমরাহ পালন করছেন।
দ্বিতীয় ধাপ ১৮ অক্টোবর থেকে শুরু হবে। এ সময়ে একদিনে সর্বোচ্চ ১৫ হাজার জনকে ওমরাহর জন্য মসজিদুল হারামে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে। এই দিন থেকে মসজিদুল হারামে ৪০ হাজার মুসল্লি নামাজ আদায়েরও সুযোগ পাবেন।
তৃতীয় ধাপ ১ নভেম্বর থেকে সৌদি আরবে অবস্থান করা এবং বিদেশ থেকে আসা ওমরাহ-যাত্রীদের মক্কার মসজিদুল হারামে ঢুকতে দেওয়া হবে। তখন প্রতিদিন ২০ হাজার মানুষ ওমরাহ পালন এবং ৬০ হাজার মানুষ নামাজ আদায় করতে পারবেন।
চতুর্থ ধাপে করোনা মহামারি দূর হওয়ার পর মসজিদুল হারাম স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবে।

 

ফেসবুকে লাইক দিন

Latest Tweets

তারিখ অনুযায়ী খবর

October 2020
FSSMTWT
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031